Sunday, 4 December 2016

লোহাগাড়ার চরম্বায় আওয়ামীলীগ নেতাকে মারধর করেছে প্রতিপক্ষরা



চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের উত্তর চরম্বা কাজীর পাড়া এলাকার পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এক প্রবীণ আ’লীগ নেতাকে প্রতিপক্ষরা মারধর করেছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে। আহত ব্যক্তির নাম আবদুল নবী (৭০)। সে উল্লেখিত এলাকায় মৃত বদিউর রহমানের পুত্র। গত ২৯ নভেম্বর রাত ৮ টায় এই ঘটনাটি ঘটেছে। এ ব্যাপারে আহত আবদুল নবী বাদী হয়ে ঐ এলাকার মৃত ইসমাইলের পুত্র নুরুল ইসলাম (৫০), খোরশেদ (২৬), আবছার (৩৫), মহিউদ্দিন (৩০), আবদুল হাই এর পুত্র মহি উদ্দিন(৩০), মৃত সোলতান আহমদের পুত্র নুরুল ইসলাম(২৮) সহ আরো ২/৩ জনকে অজ্ঞাতনামা বিবাদী করে লোহাগাড়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সূত্রে প্রকাশ, উল্লেখিত সময়ে কাজির পাড়া এলাকার আবদুল ওদুদের চায়ের দোকানের সামনে পূর্ব বিরোধের জের ধরে গাছের বাটাম, বড় দা, কিরিচ দিয়ে উল্লেখিত বিবাদীগণ সন্ত্রাসী দলবল নিয়ে অতর্কিতভাবে মারধর করে মারাতœক ভাবে মাথায় প্রচন্ড জখম হয়। স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসলে স্ত্রী ছেনোয়ারা বেগম (৫৫) ও পুত্র আবদুল মঈন (২২) কেও প্রতিপক্ষরা মারধর করে। পরবর্তীতে স্থানীয়রার তাদের উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করেন। এ ব্যাপারে আহত প্রবীন আ’লীগ নেতা আবদুল নবী বলেন, প্রতিপক্ষরা নুরুল ইসলাম, এরশাদ ও মহি উদ্দিনের নেতৃত্বে সন্ত্রাসী দলবল মিলে দোকানে চা খাওয়া অবস্থায় অতর্কিতভাবে তাকে হামলা চালায়। তিনি আরো বলেন, দীর্ঘদিন ধরে আওয়ামী রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ ও লালন করে আসছি। এছাড়াও তিনি আরো জানিয়েছেন, প্রতিপক্ষরা জামায়াত শিবিরের রাজনীতির সাথে জড়িত। আহতের পুত্র আবদুল মঈন উক্ত প্রতিনিধিকে জানান, উল্লেখিত বিবাদীগণ তার বাবা, মা ও তাকে চড়াও হয়ে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। অন্যদিকে অভিযুক্তকারীদের মুঠোফোনে না পাওয়ায় তাদের বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয় নি।

No comments:

Post a Comment